হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প তিন যোগাযোগ মাধ্যম


প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২১ , ০৭:৩৬ পিএম
হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প তিন যোগাযোগ মাধ্যম

সাম্প্রতিক সময়ে হোয়াটসঅ্যাপ ফেসবুকের সঙ্গে তথ্য শেয়ার করতে সম্মত হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে এখন থেকে হোয়াটসঅ্যাপে অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে ব্যবহারকারীদের ফেসবুককে তথ্য শেয়ারের অনুমতি দিতে হবে। হোয়াটসঅ্যাপের নতুন টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশন দিয়ে এই বিষয়ে সম্মতি দিতে হবে। ফেসবুক বরাবরের মতোই ব্যবহারকারীদের গোপন তথ্য নিয়ে তাদের ব্যবসায় করে আসছে। আর এই কারণে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ওপর বিরক্ত। এখন হোয়াটসঅ্যাপেও এমন বিড়ম্বনা যুক্ত হওয়ায় ব্যবহারকারীরা মুষড়ে পড়েছেন। আজ আপনাদের জানাবো অনলাইন মেসেজিং প্ল্যাটফরম হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প তিনটি প্ল্যাটফরম সম্পর্কে। আসুন জানা যাক-

১. সিগন্যাল
কিছুদিন আগে যুক্তরাষ্ট্রের গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক জনপ্রিয় টেলিযোগাযোগ অ্যাপ সিগন্যাল ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছেন। ফেসবুকের সঙ্গে মতদ্বৈততার কারণে তিনি এমন পরামর্শ দিয়েছেন। কারণ ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা রক্ষা করতে পারেনি। এদিক থেকে এনক্রিপ্টিং মেসেজিং অ্যাপ সিগন্যাল ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা রক্ষা করে থাকে। সেন্সরটাওয়ারের তথ্য অনুযায়ী গত ছয় দিনে লক্ষাধিক ডাউনলোড হয়েছে অ্যাপটি।

২. থ্রিমা
হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প হিসেবে এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপ্টেড মেসেজিং অ্যাপ থ্রিমা ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা রক্ষা করে থাকে। এখানে কনট্যাক্ট লিস্ট এবং গ্রুপের তথ্য ডিভাইসে জমা থাকে, অ্যাপে নয়। ভিপিএনমেন্টরের তথ্য অনুযায়ী এই অ্যাপে ফোন নম্বরের বদলে ৮ ডিজিটের থ্রিমা আইডি দিয়ে লগ ইন করা যায়। অ্যাপটিতে টেক্সট, ভিডিও কল, ফাইল শেয়ারিং ফিচার রয়েছে। মেসেজ কেবল প্রেরক ও গ্রহণকারীই পড়ে থাকেন।

৩. টেলিগ্রাম
এনক্রিপ্টেড মেসেজিং অ্যাপ টেলিগ্রাম হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে। বর্তমানে এর ২০০ মিলিয়ন সক্রিয় ব্যবহারকারী রয়েছে। অ্যাপটিতে মেসেজ মুছে দেয়া এবং মেসেজ কল করার ব্যবস্থা রয়েছে। সেন্সর টাওয়ারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী হোয়াটসঅ্যাপের নতুন টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশন সার্ভিস ঘোষণার পর বিশ্বে ২ দশমিক ২ মিলিয়ন মানুষ এই অ্যাপ ডাউনলোড করেছে।