২০২১ সালে প্রযুক্তিতে যেসব পরিবর্তন আসবে


প্রকাশিত: ০৩ জানুয়ারি ২০২১ , ০৪:০২ পিএম
২০২১ সালে প্রযুক্তিতে যেসব পরিবর্তন আসবে

২০২১ সালে আমরা তথ্যপ্রযুক্তির গ্যাজেট ও কম্পিউটারের ক্ষেত্রে নতুন কি কি পরিবর্তন আশা করছি? অনুমান করা বেশ জটিল। কারণ গত বছর আমরা শিক্ষা অর্জন করেছি আমাদের জীবনে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা যে কোনো সময় ঘটতে পারে।

এখন যে সময়ে অবস্থান করছি, এক বছর আগের এই সময়ে দাঁড়িয়ে কেউ কল্পনাও করতে পারেনি করোনার এমন ত্রাসী হুংকারে সারা বিশ্ব বিপর্যস্ত হয়ে পড়বে। করোনার বিভীষিকার মধ্যেও ২০২১ সালে তথ্যপ্রযুক্তিতে যেসব পরিবর্তন ঘটতে পারে সেই বিষয়ে আসুন জেনে নেয়া যাক-

১. বাসায় বসে কাজ

করোনার কারণে অনেকেই অফিসের বদলে বাসায় বসে কাজ করছেন। করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা চলতে থাকলে ২০২১ সালেও বাসায় বসে অফিসের কাজ করার ধারাবাহিকতা চলতে থাকবে। বাসায় অফিসের কাজ চলে আসার কারণে নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ তৈরি হবে প্রযুক্তির ক্ষেত্রে। বাসায় বসে অফিসের কাজ করার ফলে মানুষের জীবনকে একদিকে ঘিরে ব্যস্ততা ঘিরে ধরবে, অন্যদিকে তেমন কাজের মধ্যে বাসার মানুষকে সময় দেয়াও সম্ভব হবে।

২. প্রযুক্তি বাণিজ্যের সংকোচন

২০২১ সালের প্রথম ছয় মাস প্রযুক্তি বাণিজ্য সংকুচিত পরিসরে চলবে। এক্ষেত্রে প্রযুক্তি খাতে উদ্ভাবন না হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পুরনো গ্যাজেট নিয়ে এই বছরের শুরুর কয়েক মাস কাটাতে হতে পারে। প্রযুক্তি বাণিজ্যের সংকোচনের কারণে এই বছরে নতুন কোনো গ্যাজেট না আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

৩. ব্যয়বহুল গ্যাজেট ও কম্পিউটার

নতুন বছরে গ্যাজেট ও কম্পিউটারের মূল্য অনেক বেশি থাকবে। মহামারীর কারণে বিপর্যস্ত অর্থনীতিকে মোকাবেলার করার জন্য এসব পণ্যের মূল্য বেশি থাকবে। তাই মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষ এসব গ্যাজেট কিনতে গিয়ে হিমশিম খেতে হবে।

৪. গেমসের নতুন নতুন গ্যাজেট

মোবাইল বা কম্পিউটার গেমসের নতুন নতুন গ্যাজেট বাজারে আসতে থাকবে। এসব গ্যাজেটের মূল্য অনেক বেশি থাকবে। ভারতের গেমস প্রস্তুতকারকরা অনেক বেশি গেমস তৈরি করতে থাকবে।

৫. চার্জারের ব্যবহার হ্রাস

অ্যাপলের পর স্যামসাং ও শাওমিও চার্জার ছাড়া মোবাইল তৈরির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। নতুন বছরে চার্জারের ব্যবহার না হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রযুক্তির নতুন এক ক্ষেত্র তৈরি হতে চলেছে। চার্জারবিহীন মোবাইল ফোন এমনই এক ক্ষেত্র।

৬. মোবাইলের ক্যামেরায় পরিবর্তন

মোবাইল ক্যামেরায় আসছে যুগোপযোগী পরিবর্তন। মোবাইলে এখন থেকে তিনটি ক্যামেরা একসঙ্গে থাকবে। সামনে, পেছনে উভয় দিকে ক্যামেরা রাখা হবে। এতে গ্রাহকরা ইচ্ছেমতো ছবি তুলতে পারবেন।

৭. অসত্য তথ্য ও ডিপফেক ছবি-ভিডিও

গত বছর বিশ্বে অসত্য তথ্য ও ভূয়া খবর মহামারী আকার ধারণ করে। করোনা মহামারীর সঙ্গে পাল্লা দিয়েই যেন ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়তে থাকে। ২০২১ সালেও এমনটি অব্যহত থাকবে। নতুন বছরে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ডিপফেক ছবি-ভিডিওর ছড়াছড়ি থাকবে। ভুয়া খবরের মহামারীতে বিশ্ব রাজনৈতিক প্রাঙ্গণ ছেয়ে যাবে। এর মধ্য দিয়ে মানুষ সন্দেহপ্রবণ হয়ে উঠবে।

৮. ফাইভ-জি এবং স্যাটেলাইট ইন্টারনেটের সুযোগ

২০২১ সালে ভারত ফাইভ-জি এবং স্যাটেলাইট ইন্টারনেটের অন্তর্ভুক্ত দেশ হিসেবে গড়ে উঠবে। এর মধ্য দিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশেও ফাইভ-জি এবং স্যাটেলাইট ইন্টারনেট পৌঁছে যাবে। উন্নয়নশীল দেশগুলো আরও উন্নত হয়ে উঠবে।

৯. স্মার্ট হোম প্রোডাক্ট জনপ্রিয় হবে

করোনার কারণে ঘরে আটকে পড়া মানুষের জন্য স্মার্ট হোম প্রোডাক্ট ও সার্ভিস অনেক বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। মানুষ ঘরে বসে বাজারের সব ধরনের পণ্য ও সার্ভিস নিতে পারবে। মানুষের জীবনযাত্রা সহজ হয়ে উঠবে।