এলন মাস্কের জন্য বাড়লো বিটকয়েনের দাম


প্রকাশিত: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ , ০৭:১৬ পিএম
এলন মাস্কের জন্য বাড়লো বিটকয়েনের দাম

যুক্তরাষ্ট্রের গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা জানুয়ারিতে ১৫০ কোটি ডলারের বিটকয়েন কিনেছে বলে জানিয়েছেন এলন মাস্ক। এসময় ভবিষ্যতে বিটকয়েনের মাধ্যমে লেনদেন চালু হওয়ার বিষয়ে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এলন মাস্কের বিটকয়েন কেনার এই খবর প্রকাশ হওয়ার কারণে বিটকয়েনের মূল্য ১৭ শতাংশ বেড়ে গেছে। সোমবার টুইটারে এলন মাস্ক ‘হ্যাশট্যাগ বিটকয়েন’ লিখে পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে এই ঘটনা ঘটে।

পরবর্তীতে পোস্টটি সরিয়ে ফেললেও তার পোস্টের কারণে বিটকয়েন ও অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সির মূল্য বাড়তেই থাকে। টেসলা বলছে, জানুয়ারিতে তারা তাদের বিনিয়োগের নীতিমালায় পরিবর্তন এনেছে ও ডিজিটাল কারেন্সিগুলোতে লেনদেনের মাধ্যমে এখন থেকে বিনিয়োগ করবে। ১৫০ কোটি ডলারের বিটকয়েন কিনেছে তারা। এর মধ্য দিয়ে ডিজিটাল কারেন্সির জগতের শীর্ষে থাকতে চায় টেসলা।

ক্রিপ্টোকারেন্সি বিষয়ক সংস্থা মেসারির মার্কেট ইনটেলিজেন্স বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট এরিক টার্নার বলেন, ‘টেসলা বিটকয়েন কেনার মাধ্যমে অন্যান্য কোম্পানির মধ্যে উত্তেজনা প্রবল হবে। বিটকয়েন বিশ্বে অন্যতম বড় একটি কোম্পানি ও টেসলার সঙ্গে যাদের বিনিয়োগের সম্পর্ক রয়েছে তারা এখন বিটকয়েনের মাধ্যমে লেনদেন করতে চাইবে।’

তবে মার্কেটস ডট কমের প্রধান বাজার বিশ্লেষক নিল উইলসন সতর্ক করে বলেন, বিটকয়েন দ্রুত পরিবর্তনশীল একটি ক্রিপ্টোকারেন্সি। বড় একটি ঝুঁকির মুখে রয়েছে টেসলা। এটি সব বিনিয়োগকারীদের উদ্বিগ্ন না করলেও কিছু বিনিয়োগকারীর জন্য দুশ্চিন্তার কারণ।

কয়েক মাস ধরে বিটকয়েনের মূল্য রেকর্ড পরিমাণ বাড়ছে। অক্টোবরে ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের গভর্নর অ্যান্ড্রু বেইলি বিটকয়েনের পেমেন্ট পদ্ধতি সম্পর্কে সতর্ক করেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের সবসময় সততা বজায় রাখা জরুরি। বিটকয়েনের নিজের কোনো মূল্য খুঁজে পাওয়া কঠিন।’

‘বিটকয়েনের মাধ্যমে মানুষ লেনদেন শুরু করে কিনা সেই বিষয়ে আমি শঙ্কিত। বিনিয়োগকারীদের বোঝা উচিত এর মূল্য দ্রুত পরিবর্তনশীল।’