কেমন হবে অ্যামাজনের নতুন হেডকোয়ার্টার


প্রকাশিত: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ , ০৩:২৯ পিএম
কেমন হবে অ্যামাজনের নতুন হেডকোয়ার্টার

যুক্তরাষ্ট্রের বহুজাতিক প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিষ্ঠান অ্যামাজনের নতুন হেডকোয়ার্টারের নকশা প্রকাশ করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের আর্লিংটন শহরে হেডকোয়ার্টারটি নির্মাণ করা হবে। গত ২ ফেব্রুয়ারি অ্যামাজন নিউজ নামে এক টুইটারে নতুন হেডকোয়ার্টারের নকশা প্রকাশ করা হয়। টুইটার ছাড়া অ্যামাজনের ওয়েবসাইটে নতুন ভবনের একাধিক ছবি প্রকাশ করা হয়।

অ্যামাজন বলেছে, ২ দশমিক ৮ মিলিয়ন বর্গমিটার জায়গায় নির্মিত ২২ তলাবিশিষ্ট ভবনটিতে ২৫ হাজার মানুষ একসঙ্গে কাজ করতে পারবেন। ভবনটি বিভিন্ন প্রজাতির গাছ দ্বারা সুশোভিত থাকবে বলেও জানানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের টেক জায়ান্ট অ্যামাজন টুইটারে যে ছবি প্রকাশ করেছে, সেই ছবি দেখলে প্রথম দেখাতেই মনে হবে একটি বড় স্ক্রু উল্টো করে রাখা হয়েছে। তার মূল কাঠামো ছাড়া পুরোটাই কাঁচের তৈরি। এক ব্লগপোস্টে অ্যামাজন বলেছে, ভবনটি প্রকৃতির সঙ্গে কর্মীদের একাত্ম করে তুলবে।

তিনটি খুচরা দোকানের প্যাভিলিয়ন রাখার জন্য এক লক্ষ বর্গ ফুট স্থান রাখার পরিকল্পনা রয়েছে অ্যামাজনের। এসব স্থানে রেস্তোরাঁ, দোকানসহ আরও বিভিন্ন ব্যবসায়িক কার্যক্রম চলবে। অ্যামাজন বলেছে, এতে দক্ষিণ ভার্জিনিয়ার একটি সোলার ফার্ম থেকে আনা ইলেক্ট্রিক সেন্ট্রাল হিটিং অ্যান্ড কুলিং সিস্টেম ব্যবহৃত হবে।

নতুন ভবনে সূর্যের পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখা হবে। এছাড়া ভবনটি রাস্তায় মানুষের চলাফেরার উপযোগী করে নির্মাণ করা হবে। যাতে মানুষ সুশৃঙ্খলভাবে হেঁটে এবং বাইক ও গণপরিবহনে মানুষ সহজে যাতায়াত করতে পারে। অ্যামাজনের নতুন ভবন প্রায় ৩৫০ ফুট উঁচু হবে।