এ কাজ করেই ইউটিউবে লাখপতি

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ , ০৮:৫৮ এএম
এ কাজ করেই ইউটিউবে লাখপতি

রান্না নিয়ে ইউটিউবে চ্যানেলের অভাব নেই। কিন্তু দেশের ঐতিহ্যবাহী খাবার তৈরির রেসিপি-ই রয়েছে বা কয়টি চ্যানেলে?

প্রবাসীদের কথা চিন্তা করে ২০১৬ সালে ইউটিউব চ্যানেল খোলেন ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের দুই বন্ধু লক্ষ্মণ কারে ও শ্রীনাথ রেড্ডি।

খুব সহজ উপায়ে কিছু রান্না করে পেট ভরানোর রেসিপির ভিডিও দিয়ে শুরু করেন ‘কান্ট্রি ফুড’ নামে এই চ্যানেল।কয়েক মাস পর লক্ষ্মণ কারে ও শ্রীনাথ রেড্ডি প্রথম বার আপলোড করেন মস্তনাম্মার একটি ভিডিও। বর্তমানে তাঁর বয়স প্রায় ১০৭ বছর। কিন্তু এখনও তিনি নিজে হাতে রান্না করেন নানা দেশীয় খাবার।

গ্রামের খেতের মাঝে বসেই মস্তনাম্মা এক্সপেরিমেন্ট করেন খাবারের নানা সরঞ্জাম দিয়ে। কখনও তরমুজের মধ্যে চিকেন, কখনও বা টমেটোর ভিতরে অমলেট কারি। আবার কখনও একেবার সাদামাটা বেগুনের তরকারি, বাঁধাকপির তরকারি। পিৎজা, ব্রেড ওমলেট, সামুচাও রয়েছে মস্তনাম্মার রান্নার তালিকায়। ফ্রায়েড চিলি চিকেন বা চিকেন ড্রামস্টিকের পাশাপাশি, মাছ বা চিকেন বা কাঁঠালের বিরিয়ানিও তৈরি করেছেন মস্তনাম্মা।

রান্নার আগে প্রয়োজনীয় সব উপকরণ তাঁর হাতের কাছে গুছিয়ে দেন মস্তনাম্মার পরিবারের লোকজন। তারপর তিনি আসরে নামেন বলে জানিয়েছেন লক্ষ্মণ কারে। যিনি আবার মস্তনাম্মার নাতিও বটে।

‘কান্ট্রি ফুড’ চ্যানেলের দুই পার্টনার লক্ষ্মণ কারে ও শ্রীনাথ রেড্ডি জানান, মস্তনাম্মার রেসিপি ভিডিও আপলোড হওয়ার পরে তাঁদের চ্যানেলের সাবস্ক্রিপশন বেড়ে গিয়েছে কয়েক গুণ। একা মস্তনাম্মারই নাকি সেই সংখ্যা নিয়ে গিয়েছেন ৩ লাখে। মস্তনাম্মার নানা ডিশের মধ্যে সব থেকে জনপ্রিয় ডিশটি হলো ব্রিঞ্জল কারি