আপনি কি রোবট?

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ , ০৬:৪৭ পিএম
আপনি কি রোবট?

‘আমাদের সিস্টেম আপনার কম্পিউটার নেটওয়ার্ক থেকে অস্বাভাবিক ট্রাফিক শনাক্ত করেছে। পরে আবার অনুরোধ (সার্চ) করার চেষ্টা করুন।’

সার্চইঞ্জিন গুগলে কোনো তথ্য খুঁজতে গেলে হঠাৎ এমন বার্তা পেয়ে যেতে পারেন। গুগল বলছে, আপনার নেটওয়ার্কে থাকা যন্ত্রগুলো যদি গুগলে স্বয়ংক্রিয় ট্রাফিক পাঠাচ্ছে বলে মনে হয়, তবে আপনি হয়তো এমন বার্তা পাবেন। গুগল মনে করে, তার কাছে এমন অনুরোধ কোনো মানুষ পাঠাচ্ছে না। কোনো রোবট, স্বয়ংক্রিয় সার্ভিস, সার্চ স্ক্র্যাপার (Search Scrapper) অথবা অন্য কোনো ক্ষতিকর প্রোগ্রাম এমনটি করছে। বিশেষতই এটি আপনার অজান্তেই ঘটেছে। এ ক্ষেত্রে I’m not robot–এর রি-ক্যাপচাটা ফরম পূরণ করে আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে আপনি রোবট না মানুষ। অনেক সময় আবার এমন ফরম আসে কিন্তু দেখা যায় না । তখন বিপদ শেষ হয় না। তবে এ থেকে উত্তরণের উপায়ও আছে।

যে কারণে এমন হয়
* আপনি একসঙ্গে একাধিক বিষয়ে তথ্য খুঁজতে গেলে।
* ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক বা ভিপিএন ব্যবহারে।
* আপনার নেটওয়ার্ক কোনো সর্বজনীন প্রক্সি সার্ভারের মতো একটি ভাগ করা (শেয়ার) আইপি ঠিকানা ব্যবহার করে থাকেন, সেই ক্ষেত্রে গুগল হয়তো অন্য ব্যবহারকারীদের ডিভাইসগুলোর ট্রাফিকের ওপর ভিত্তি করে এমন বার্তা দিয়ে থাকে।
* আপনি যদি ইচ্ছাকৃতভাবে স্বয়ংক্রিয় অনুসন্ধান সরঞ্জাম চালান।
* আপনার ব্যবহৃত নেটওয়ার্কের একাধিক ব্যক্তি অনুসন্ধান করলে।

হতে হবে সচেতন
এমন সমস্যায় আপনার সম্পূর্ণরূপে সচেতন হওয়া উচিত। এ ক্ষেত্রে যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি থেকে আগেভাগেই সাবধান থাকতে হবে। তার আগে নিচের বিষয়গুলো আগে ভেবে রাখা জরুরি।

* অন্য কেউ আপনার নেটওয়ার্ককে নিজের উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য ব্যবহার করছে না তো?
* আপনার নেটওয়ার্কে বড় কোনো ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে কি না!
* কোনো অজানা ব্যাকগ্রাউন্ড প্রসেস আপনার কম্পিউটারে বাসা বেঁধে অবাঞ্ছিত তথ্য পাঠাচ্ছে কি না!

ত্রুটি থামাতে যা করবেন
গুগলে তথ্য খুঁজতে গিয়ে এমন সমস্যা মহামারি হয়ে ছড়িয়ে গেছে যেন। নিচের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করলে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

* পর্দায় ক্যাপচা এলে সেটাকে আপনার পূরণ করতে হবে। নানা রকমের ছবি চিহ্নিত করে গুগলকে আপনার বোঝাতে হবে, আপনি রোবট বা অন্য কিছু না, আপনি মানুষ এবং আপনি তাদের নেটওয়ার্কের অপব্যবহারও করছেন না।
* কয়েক মিনিটের জন্য ম্যানুয়াল গুগল অনুসন্ধানগুলো বন্ধ রাখুন। যাতে করে ‘অস্বাভাবিক ট্রাফিক’ তৈরি হওয়া সময় দীর্ঘ হয়।
* কোনো ভিপিএন সংযোগ থাকলে তা বিচ্ছিন্ন করুন।
* অস্থায়ীভাবে Mozbar–এর মতো সার্চ স্ক্র্যাপারগুলো বন্ধ রাখুন।
* যদি আপনার সন্দেহ হয় যে কম্পিউটার ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে, তবে পরিত্রাণ পেতে ভালো ম্যালওয়্যার স্ক্যানার চালাতে দ্বিধা করবেন না।
* আপনার ওয়েব ব্রাউজার এবং ব্যবহৃত রাউটারটি পুনরায় চালু করুন।
* গুগল আপনার জন্য যে দূষিত প্রোগ্রামগুলো দেখছে তা নিশ্চিত করার জন্য জনপ্রিয় ব্রাউজার গুগল ক্রোমের ক্লিনআপ টুলটি চালাতে পারেন।

ক্রোম ক্লিনআপ টুল ব্যবহার করবেন যেভাবে
ব্যবহৃত গুগল ক্রোম ব্রাউজার চালু করুন। ব্রাউজারের ওপরে ডান পাশের তিন ডট–বিশিষ্ট মেনুতে ক্লিক করুন। ড্রপ ডাউন মেনু এলে এখানে Settings–এ ক্লিক করুন অথবা ক্রোম অ্যাড্রেসবার বা অমনিবক্সে chrome://settings লিখুন। স্ক্রল করে একদম নিচে এসে Advanced–এ ক্লিক করুন। Reset and clean up–এ আসার আগ পর্যন্ত স্ক্রল করতে থাকুন। এখানে Clean up computer অপশনে ক্লিক করুন। Find and remove harmful software অপশনের পাশে FIND বোতামে ক্লিক করতে হবে। এই অপশন আপনার কম্পিউটারে থাকা ক্ষতিকর প্রোগ্রাম বা এক্সটেনশন থাকলে সেটা খুঁজে নিয়ে মুছে ফেলবে।

ব্রাউজার সেটিংস আবার
ক্রোম ব্রাউজার খুলুন। ওপরে ডান পাশের তিন ডট–বিশিষ্ট মেনুতে ক্লিক করুন। ড্রপ ডাউন মেনু এলে এখানে Settings–এ ক্লিক করুন। স্ক্রল করে একদম নিচে এসে Advanced–এ ক্লিক করুন। Reset and clean up–এ আসার আগ পর্যন্ত স্ক্রল করতে থাকুন। এখানে Restore settings to their original defaults অপশনে ক্লিক করুন। নতুন উইন্ডো এলে RESET SETTINGS বোতামে ক্লিক করতে হবে। আপনার ক্রোম ব্রাউজারের সেটিংস অরিজিনাল সেটিংসে পুনরায় সেট হয়ে যাবে ।
লেখক: সফটওয়্যার প্রকৌশলী