সিনেমার চেয়েও রোমহর্ষক!

ফিচার ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮ , ০৬:৫৮ পিএম
সিনেমার চেয়েও রোমহর্ষক!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডের পোটোম্যাক নদীর ম্যালোজ বে নামক অঞ্চলে যা ঘটেছে তা সিনেমার চাইতেও রোমহর্ষক। মার্কিন গৃহযুদ্ধ থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ডুবে যাওয়া প্রায় ২০০ জাহাজের ঝাঁক ক্রমশ এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে।

বিজ্ঞান বিষয়ক গণমাধ্যম ‘লাইভসায়েন্স’ এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, পোটোম্যাক নদীর এই অংশে যুগ যুগ ধরে জাহাজডুবি ঘটেছে। ইতিহাসবিদ থেকে শুরু করে ভৌগোলিক ও পরিবেশ বিজ্ঞানী পর্যন্ত এই এলাকাটিকে ‘মার্কিন নৌ বহরের জীবন্ত জাদুঘর’ বলে ডাকেন। পানিতে ডুবে থাকা এই সব জাহাজ ওই অঞ্চলের পরিবেশের উপরে বিপুল প্রভাব ফেলেছে। পানির তলায় ডুবে থাকা ওই সব জাহাজ স্থানীয় জলজন্তু ও অন্যান্য প্রাণীর বাসস্থানে পরিণত হয়েছে। গড়ে উঠেছে একেবারেই অচেনা এক বাস্তুজগৎ বা ইকো সিস্টেম।

২০১৭ সালে মেরিল্যান্ডের জে সি পার্কস এলিমেন্টারি স্কুলের ফিফথ গ্রেডের কিছু শিক্ষার্থী স্কুলের উদ্যোগেই এই ডুবে থাকা জাহাজগুলোর অবস্থান বোঝার চেষ্টা করে। বিভিন্ন মানচিত্রে ধরে রাখা জাহাজগুলোর অবস্থান বিচার করে শিক্ষার্থীরা যা দেখতে পায় তা বিস্ময়কর। তারা দেখতে পায়, ডুবে থাকা জাহাজগুলোর একটা বড় অংশ তাদের পূর্ববর্তী অবস্থান থেকে ২০ মাইল পূর্ব দিকে সরে এসেছে। এবং তারা ক্রমশই সরছে ডাঙার দিকে।

‘ভুতুড়ে জাহাজ’র এই ঝাঁককে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ওশিয়ানিক অ্যান্ড অ্যাটমোস্ফিয়ারিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ‘মেরিন স্যাংচুয়ারি’ হিসেবে ঘোষণা করেছে। কিন্তু জাহাজের এই অবস্থান বদল সেই অঞ্চলের বাস্তুতন্ত্রে পরিবর্তন আনতে চলেছে বলে জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা।