শিশুকে হয়রানি থেকে বাঁচাবেন যেভাবে

ফিচার ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ অক্টোবর ২০১৭ , ০১:৩০ এএম
শিশুকে হয়রানি থেকে বাঁচাবেন যেভাবে

সবচেয়ে ভয়ংকর সত্য হচ্ছে- শিশুর ওপর যৌন হয়রানির ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটছে পরিবারের মধ্যে। পরিবারেরই কোনো মানসিক বিকারগ্রস্ত সদস্যের হাতে৷ তাই সে সব ঘটনা পুলিশের কাছে পৌঁছায় না, হচ্ছে না কোনো ডায়েরি বা মামলা৷

তাই প্রতিদিন বিকৃত যৌন নির্যাতনে হারিয়ে যাচ্ছে শৈশব৷ অনেক ক্ষেত্রেই শিশুরা বুঝে উঠতে পারছে না তাদের অমানবিক সে সব অভিজ্ঞতার কথা৷ এমনকি বুঝলেও বলতে সাহস পাচ্ছে না। শিশুদের প্রতি যৌনাসক্ত, বিকৃত মানুষগুলো থেকে যাচ্ছে লোকচক্ষুর আড়ালে৷

সমাজবিজ্ঞানীরা বলছেন, এ জন্য আগেই সতর্ক থাকতে হবে অভিভাবক এবং স্কুলের৷ শিশুকে দিতে হবে তার প্রাপ্য শৈশব৷ সহজ ভাষায় খেলা বা গল্পচ্ছলে শিশুদের এ বিষয়ে একটা ধারণা দিতে হবে৷ বাচ্চাদের বলতে হবে যে, তাদের শরীরটা শুধু তাদের৷

অর্থাৎ কেউ যেন তাদের ‘গোপন’ জায়গায় হাত না দেয়৷ তাই কোনো আত্মীয় বা পরিচিত ব্যক্তির আচরণ অস্বস্তিকর মনে হলে, কেউ তাদের জোর করে কোনো ঘরে নিয়ে গেলে, খেলার ছলে চুমু দিলে বা শরীরের কোথাও হাত দিলে– তা যেন মা-বাবাকে জানাতে পারে৷ সাবধানতার সময় এখনই। কেননা প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ শ্রেয়।